Breaking News

কোটালীপাড়াবাসীর নজর কেড়েছে ২৫ মন ওজনের কালা পাহাড়

কোটালীপাড়া প্রতিনিধিঃ

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলাবাসীর নজর কেড়েছে ২৫মন ওজনের ষাঁড় ‘কালা পাহাড়’।
এই ষাঁড়টির মালিক উপজেলার কুশলা ইউনিয়নের দক্ষিণ মান্দ্রা গ্রামের খামারী হাবিবুর রহমান শেখ।
গত সাড়ে ৩বছর ধরে হাবিবুর রহমান শেখ এই হলিস্টিন ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড়টি লালন পালন করেছেন। এখন তিনি এই ষাঁড়টি বিক্রি করতে চাচ্ছেন। ষাঁড়টি দেখতে প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকার লোকজন এসে ভিড় করেন খামারী হাবিবুর রহমানের বাড়ি। তবে এখন পর্যন্ত এই ষাঁড়টির কোন ক্রেতা দাম হাকাননি বলে জানিয়েছেন এই খামারী।
সাড়ে ৫ফিট উচ্চতা ও ৮ফুট লম্বা এই ষাঁড়টির ওজন ২৫মন। ষাঁড়টি দেখতে কালো বর্ণের হওয়ার কারণে খামারী হাবিবুর রহমান শেখ এর নাম দিয়েছেন ‘কালা পাহাড়’।
খামারী হাবিবুর রহমান শেখ বলেন, কাঁচা ঘাস, খৈল, ভূষি, ভুট্টা, ডালের গুড়া, খড়, চিটাগুড় খাওয়াইয়ে প্রাকৃতিক ভাবে ষাঁড়টি লালন পালন করিছি। সাড়ে ৩বছর ধরে ষাঁড়টি লালন পালন করতে আমার প্রায় ৪লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন ষাঁড়টির পিছনে আমার ৮শত টাকা খরচ হচ্ছে। আমি ৭লক্ষ টাকা হলে ষাঁড়টি বিক্রি করবো। খামারী হাবিবুর রহমান শেখ ০১৭২০৯৫৭৯৬৬১ নম্বরে যোগাযোগের মাধ্যমে ষাঁড়টি কিনতে আগ্রহীদের অনুরোধ জানিয়েছেন।
মান্দ্রা গ্রামের ইব্রাহিম শেখ বলেন, আমার জীবনে আমি এতো বড় গরু দেখেনি। আমার মনে হয় কোটালীপাড়ার মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড় গরু। হাবিবুর রহমান অনেক কষ্ট করে এই গরুটি লালন পালন করেছেন। তিনি যদি এই গরুটি এখন ভালো দামে বিক্রি করতে না পারেন তাহলে তিনি ক্ষতির সম্মূখীন হবেন।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. পলাশ কুমার দাশ বলেন, হাবিবুর রহমানের মতো অনেক খামারীই আমাদের কাজ থেকে পরামর্শ নিয়ে ষাঁড় পালন করেছেন। এরা যদি এ বছর এই ষাঁড় বিক্রি করে লাভবান হয় তাহলে আগামীতে এদের মতো অনেকেই ষাঁড় পালনে আগ্রহী হবে।

Check Also

কোটালীপাড়ায় শিক্ষক কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডের নির্বাচন

কোটালীপাড়া প্রতিনিধিঃ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় শিক্ষক কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডের নির্বাচনে মোহাম্মদ মতিয়ার হোসেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *