Breaking News

গণমাধ্যম কর্মীদের হস্তক্ষেপে ছিনিয়ে নেয়া শিশু ফিরে পেল মায়ের কোল

টুঙ্গিপাড়া প্রতিনিধিঃ

বন্যেরা বনের সুন্দর শিশুরা মাতৃক্রোড়ে । শিশুকে মায়ের কোলেই শোভাপায়। মায়ের কোলই শিশুর সবচেয়ে নিরাপদ ঠিকানা। মায়ের কোল থেকে শিশুকে ছিনিয়ে নেয়ার মা ছেলেকে ফিরে পেতে প্রাণপন চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। অবশেষে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমরান শেখের নেতৃত্বে একদল সাংবাদিক শিশুটিকে ফিরিয়ে এনে বিধবা গৃহবধূর কোলে তুলে দেন । নাড়িছেড়া ধন ছেলেকে ফিরে পেয়ে মা আত্নহারা হয়ে ওঠেন।

এ ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ডুমুরিয়া ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামে।

টুঙ্গিপাড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমরান শেখ জানান, ২০১৪ সালে ডুমুরিয়া ইউনিয়নের করফা গ্রামের রফিক ব্যাপারীর ছেলে রহিম ব্যাপারীর (২৮) সাথে বাঁশবাড়িয়া গ্রামের বেলায়েত হোসেনের কন্যা বিলকিস বেগম (২২) বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এ দম্পত্তির ঘর আলো করে একটি পুত্র সন্তান জম্ম নেয় । তার নাম রাখা হয় মুজাহিদ ব্যাপারী। বর্তমানের তার বয়স ৩ বছর। সম্প্রতি বিলকিস অন্তসত্ত্বা হন । মে মাসের শেষের দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ দেখা দেয় ।

গত ২ জুন বিলকিস রাগ করে স্বমীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি বাঁশবাড়িয়া গ্রামে চলে আসে। গত ১৪ জুন রহিম ব্যাপারী সংসারের টানাপড়েনে হতাশায় হয়ে বিষ পানে আত্মহত্যা করে। পরের দিন রহিমের বাড়ি থেকে লোক এসে বিলকিসকে হুমকি, ভয়-ভীতি দেখিয়ে তার ৩ বছরের শিশু পুত্র মুজাহিদকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

একদিকে স্বামী হারানোর বেদনা অন্যদিকে বুঁকের ধন ছেলেকে ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন বিলকিস।

টুঙ্গিপাড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমরান শেখ বলেন, ডুমুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কবির আলম তালুকদারের কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পারি। মঙ্গলবার বিকেলে কয়েকজন সাংবাদিককে সাথে নিয়ে রহিম ব্যাপারীর করফা গ্রামের বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের বুঝিয়ে ছেলেটিকে নিয়ে এসে মা বিলকিসের কোলে তুলে দেই। ছেলেকে পেয়ে মা আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন। সেখানে আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

ডুমুরিয়া ইউপির ৪ নং ওয়ার্ড মেম্বর বাবুল তালুকদার বলেন, স্বামীর বাড়ির লোকজন সন্তানকে ছিনিয়ে নেওয়ার পর মা বিলকিস বেগম মুষড়ে পড়েন। ছেলেকে ফিরে পেতে আমার কাছে এসে কান্নাকাটি করে। আমি বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানকে জানাই।

ডুমুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কবির আলম তালুকদার বলেন, এ ঘটনা শুনে আমি বিলকিসের বাবার বাড়িতে যাই। তার ছেলেকে তার কোলে ফিরিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নিতে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমরান শেখকে মুঠোফোনে অনুরোধ করি । ইমরান অন্য সাংবাদিকদের সাথে নিয়ে ওই শিশুটিকে এনে ডুমুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল তালুকদার, ইউপি সদস্য সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিয়েছে। এতে বিলকিসের মুখে হাঁসি ফুটেছে। এ মহৎ কাজের জন্য আমি সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান।

সন্তান ফিরে পাওয়ার আনন্দে আত্মহারা মা বিলকিস বেগম বলেন, ইমরান সহ কয়েকজন সাংবাদিক আমার ছেলেকে এনে আমার কোলে ফিরিয়ে দিয়েছে। এতে আমি খুবই খুশি। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। স্বামী হারানোর বেদনায় আমি মর্মাহত । তারপরও ছেলেটিকে কাছে পেয়ে খুবই ভালো লাগছে। ওর মুখের দিকে তাকিয়ে স্বামী হারানোর বেদনা কিছুটা ভুলে থাকতে পারবো।

Check Also

ধর্ষকের সাথে মেলেনি ডিএনএ টেস্ট-তাহলে এই কন্যা সন্তানের পিতা কে?

কোটালীপাড়া প্রতিনিধি: ধর্ষণ মামলায় ৯মাস জেল খেটে ছাড়া পেয়েছেন মোস্তফা শিকদার (৪০) নামে এক যুবক। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *